কনডম ব্যবহারের উপায়

কনডম ব্যবহারের নিয়ম

অনেক প্রয়োজনীয় বিষয় আছে যা আমরা সচরাচর সকলের সাথে আলাপ আলোচনা করতে বিব্রত ও লজ্জা পেয়ে থাকি। কিন্তু এই বিষয়গুলো আসলেই সকলের জানা দরকার এবং বাস্তব ধারণা থাকা প্রয়োজনীয়। অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভধারণ এবং যৌন সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ করার সবচেয়ে ভালো উপায় হল কনডম ব্যবহার করা। এটি ল্যাটেক্স রাবার অথবা প্লাস্টিক (পলিইউরিন) দিয়ে তৈরি জন্মনিয়ন্ত্রক। মান যাচাইয়ের জন্য এবং কেনার সময় অবশ্যই মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ দেখে কিনুন।

নারী ও পুরুষ দুই ধরনের কনডমই রয়েছে। তবে নারীদের কনডম বাংলাদেশে পাওয়া যায়না।

পুরুষদের কনডম : মিলনের সময় কনডম পুরুষ লিঙ্গে পরা হয় যেন বীর্য সঙ্গীর যোনীতে প্রবেশ করতে না পারে। কনডমটি পরতে হবে যখন পুরুষ লিঙ্গ উত্তেজিত থাকবে এবং সঙ্গীর দেহে প্রবেশ করার পুর্বে।
👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

আজকের বিষয় কনডম এর সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে কিছু টিপস।

👉 মেয়েদেরকে গোপনে সহবাসের জন্য রাজি করে তোলার ঔষধ।

👉পুরুষের লিঙ্গ মোটা করা ও বড় করার আধুনিক ঔষধ।

👉 ত্বক ফর্সাকারী ডিউ ক্রিম এখন মাত্র 350 টাকায় আজই কিনুন।

👉 মেয়েদের ত্বক ফর্সাকারী অরজিনাল goree ক্রিম মাত্র 550 টাকায়

👉 ছেলে মেয়ে উভয়েই গোপন অঙ্গের কালো দাগ দূর করার ক্রিম মাত্র 450 টাকা।

১) কনডমের প্যাকেটটি খুব সতর্কতার সাথে খুলতে হবে। সবসময় কনডম প্যাকেট এর যে কোন এক প্রান্ত থেকে খোলা ভালো। কারণ প্যাকেটটি খুলবার সময় যদি কনডমটি ভিতর থেকে কনডম ফুটা হয়ে যায় অথবা ফেটে যাই তাহলে কনডমটি সম্পূর্ণ ব্যবহার অনউপযোগী হয়ে যেতে পারে।

২) এবার কনডমটি প্যাকেট থেকে বের করবার পর খেয়াল রাখতে হবে, কনডমটি কোন পাশ থেকে রোল হবে। আপনি রোলিং পাশটি নিশ্চিত করবার জন্য একটি আঙ্গুল হালকা করে কনডমের রাবারের ভিতর প্রবেশ করে রোলিং পাশটি নিশ্চিত করতে পারেন।
👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

৩) কনডম ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই ভিতরের বাতাস বের করে নিতে হবে অন্যথায় তা ফেটে গিয়ে শুক্রানু যোনিপথে প্রবেশ করতে পারে।

কনডম ব্যবহারের উপায়

৪) এইবার আস্তে আস্তে হালকা ভাবে রোল করে কনডমটি আপনার গোপনঅঙ্গে পরিয়ে নিন।

৫) সম্পূর্ণ উত্তেজনা না হওয়া পর্যন্ত কনডম গোপন অঙ্গে না পরাই ভালো। কারণ উত্তজনা কম থাকলে পরবর্তীতে কনডম খুলে আসতে পারে।

৬) এইবার মিলন শেষে উত্থিত অবস্থায় লিঙ্গ বের করে নিয়ে আসতে হবে না হলে অনেক সময় শুক্রানু ছড়িয়ে পরতে পারে।

৭) মিলন শেষে ব্যবহারিত কনডম এর শেষ প্রান্তে হালকা ভাবে একটি গিট বাধে দেওয়া ভালো, যার ফলে শুক্রানু বাইরে প্রবেশ করবে না।
👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

কনডম ব্যবহার শতকরা ১০০ ভাগ জন্মনিয়ন্ত্রনের নিরাপত্তা দেয়না। এর সাফল্যের হার ৯০% এর কাছাকাছি। নিয়ম মাফিক ব্যবহার না করলেই ব্যর্থতা দেখা দেয় । অনেক দম্পত্তির কনডমে এলার্জি থাকতে পারে তাদের কনডম ব্যবহার না করাই ভালো। দীর্ঘদিন কনডম ব্যবহার করলে অনেক সময় দম্পতিরা একধরনের মানসিক অতৃপ্তি এবং অশান্তিতে ভোগেন। কনডম ব্যবহারের সাথে সাথে প্রাকৃতিক জন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি ব্যবহার করে স্বামী-স্ত্রী অনেক আরাম দায়ক যৌন জীবন উপভোগ করতে পারেন।

কনডমের সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে কিছু টিপস
অনেক প্রয়োজনীয় বিষয় আছে যা আমরা সচারআচার সকলের সাথে আলাপ আলোচনা করতে বিব্রত ও লজ্জা পেয়ে থাকি। কিন্তু এই বিষয় গুলো আসলেই সকলের জানা দরকার এবং বাস্তব ধারণা থাকা প্রয়োজনীয়। গোপন জিনিস ডট কম এর প্রধান লক্ষ্য হলো এই সমস্ত বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত এবং খুব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাঠকদের কাছে তুলে ধরা। আজকের বিষয় কনডম এর সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে কিছু টিপস।
👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

👉👉 যেকোন বয়সের মেয়েদেরকে সহবাসে রাজি করানোর ঔষধ।

👉👉 পুরুষের দ্রুত বীর্যপাতের সমস্যা দূর করার কার্যকরী ঔষধ

👉👉 পুরুষের লিঙ্গ মোটা করা ও বড় করার আধুনিক ঔষধ।

👉👉 একটানা 15 থেকে 30 মিনিট সহবাস করার ঔষধ।

👉👉 মেয়েদেরকে গোপনে সহবাসের জন্য রাজি করে তোলার ঔষধ।


কনডম হলো ব্যরিয়ার পদ্ধতির জন্মবিরতি করন উপাদান। এর জনপ্রিয়তার কারন যেকোনো সময় এটা ব্যবহার করা যায় এবং এটা সহজলভ্য। কনডমের সবচেয়ে বড় সুবিধা এই যে এটা যৌনবাহিত যেকোনো রোগ থেকে সঙ্গম সময়ে নিরাপত্তা দেয়। এইডস, সিফিলিস, গনোরিয়া, ক্লামাইডিয়া, কন্ডাইলোমা সহ যে কোন যৌন রোগ কনডম ব্যবহারের মাধ্যমে এড়ানো সম্ভব। অনেক পুরুষ আছেন যাদের মিলনের পূর্বেই বীর্যপাত ঘটে (Premature ejaculation) তারা অনেক সময় কনডম ব্যবহারে কিছুটা সুবিধা পেতে পারেন, এছাড়া কিছু মহিলা আছেন যাদের স্বামীর শুক্রানুর প্রতি এলার্জি থাকে, মাস ছয়েক কনডম ব্যবহার করে এই এলার্জি নিয়ন্ত্রন করা যায়, লিঙ্গ প্রবেশের প্রাথমিক পর্যায়ে খসখসে ভাব বা ব্যথা হলেও কনডম ব্যবহারে উপকার পাওয়া যায়।
👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

কনডম ব্যবহারের কিছু নিয়ম:
১) কনডমের প্যাকেটটি খুব সতর্কতার সাথে খুলতে হবে। সবসময় কনডম প্যাকেট এর যে কোন এক প্রান্ত থেকে খোলা ভালো। কারণ প্যাকেটটি খুলবার সময় যদি কনডমটি ভিতর থেকে কনডম ফুটা হয়ে যায় অথবা ফেটে যাই তাহলে কনডমটি সম্পূর্ণ ব্যবহার অনউপযোগী হয়ে যেতে পারে।
২) এবার কনডমটি প্যাকেট থেকে বের করবার পর খেয়াল রাখতে হবে, কনডমটি কোন পাশ থেকে রোল হবে। আপনি রোলিং পাশটি নিশ্চিত করবার জন্য একটি আঙ্গুল হালকা করে কনডমের রাবারের ভিতর প্রবেশ করে রোলিং পাশটি নিশ্চিত করতে পারেন।
৩) কনডম ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই ভিতরের বাতাস বের করে নিতে হবে অন্যথায় তা ফেটে গিয়ে শুক্রানু যোনিপথে প্রবেশ করতে পারে।
৪) এইবার আস্তে আস্তে হালকা ভাবে রোল করে কনডমটি আপনার গোপনঅঙ্গে পরিয়ে নিন।
৫) সম্পূর্ণ উত্তেজনা না হওয়া পর্যন্ত কনডম গোপন অঙ্গে না পরাই ভালো। কারণ উত্তজনা কম থাকলে পরবর্তীতে কনডম খুলে আসতে পারে।
👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

৬) এইবার মিলন শেষে উত্থিত অবস্থায় লিঙ্গ বের করে নিয়ে আসতে হবে না হলে অনেক সময় শুক্রানু ছড়িয়ে পরতে পারে।
৭) মিলন শেষে ব্যবহারিত কনডম এর শেষ প্রান্তে হালকা ভাবে একটি গিট বাধে দেওয়া ভালো, যার ফলে শুক্রানু বাইরে প্রবেশ করবে না।
কনডম ব্যবহার শতকরা ১০০ ভাগ জন্মনিয়ন্ত্রনের নিরাপত্তা দেয়না। এর সাফল্যের হার ৯০% এর কাছাকাছি। নিয়ম মাফিক ব্যবহার না করলেই ব্যর্থতা দেখা দেয় । অনেক দম্পত্তির কনডমে এলার্জি থাকতে পারে তাদের কনডম ব্যবহার না করাই ভালো। দীর্ঘদিন কনডম ব্যবহার করলে অনেক সময় দম্পতিরা একধরনের মানসিক অতৃপ্তি এবং অশান্তিতে ভোগেন। কনডম ব্যবহারের সাথে সাথে প্রাকৃতিক জন্মনিয়ন্ত্রন পদ্ধতি ব্যবহার করে স্বামী-স্ত্রী অনেক আরাম দায়ক যৌন জীবন উপভোগ করতে পারেন।
আমরা নানান ধরনের ম্যাজিক কনডম বিক্রি করে থাকি। আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।
ম্যাজিক কনডম এর উপকারিতা—
১/ এই কনডম অনেক বার ব্যাবহার করা যায়, মিনিমাম ১০০০ বার
২/ এই কনডম আপনার বীর্য দেরিতে পরতে সাহায্য করবে।
৩/ এই কনডম ৩মিলি পরিমান মোটা ফলে আপনার সময় অনেক বাড়াবে ।
৪/ এই কনডম আকার ভেদে ৫ ইঞ্চি থেকে ৭ ইঞ্চি হয়।
👉সরাসরি অর্ডার করতে ফোন করুন- 01751358525
👉সরাসরি কিনতে ক্লিক করুন –এখনই কিনুন

৫/ এই কনডম এ উপরের সাইডে অনেক গুলা অতি নরম রিবস আছে যা আপনার সঙ্গিনিকে ৫ মিনিটের ভিতর অতিমাত্রায় উত্তেজিত করতে সাহায্য করবে।
৬/ এই কনডম আপনার সুখানুভুতি বহু গুন বাড়িয়ে দিবে।
৭/ এই কনডম এ সাধারন কনডম এর মত এতে তেল লাগাতে হয় না।
৮/ এই কনডম যে কোনও সাইজের লিঙ্গে সহজে ব্যাবহার করা যায়।
এত সব সুবিধার জন্য আপনি নিশ্চয়ই এই ম্যাজিক কনডম ব্যাবহার করবেন।

4 Replies to “কনডম ব্যবহারের নিয়ম”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *